বর্ষার দিনে চুলের যত্নে - যা করবেন (রুপচর্চা)



পঞ্জিকামতে আষাঢ় শুরু হয়ে গেছে। প্রকৃতিতেও বাজতে শুরু করেছে বাদলা দিনের গান। বৃষ্টি বলে তো আর ঘরে বসে থাকার জো নেই। নানা কাজে নানান জনকে তো বাইরে বের হতেই হবে। আর বের হতে গেলেই গা–মাথা ভিজে একাকার। বৃষ্টির পানিতে নিয়মিত চুল ভেজালে দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা। সমস্যাগুলোর সমাধান নিয়ে কথা বললেন আয়ুর্বেদিক রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা

রাহিমা সুলতানা বললেন, বৃষ্টির পানিতে একধরনের অ্যাসিড থাকে। দীর্ঘ সময় চুলে এই পানি লেগে থাকলে চুলের ক্ষতি হয়। এ ছাড়া ঘামে ভেজা বা বৃষ্টির পানিতে ভেজা চুল দীর্ঘ সময় ধরে না শুকানোর ফলে মাথার ত্বকে স্যাঁতসেঁতে ভাব তৈরি হয়। যাতে একধরনের ছত্রাকের জন্ম হয়ে পরবর্তী সময়ে চুলের গোড়ায় সংক্রামণ হয়, খুশকি হয়, চুল পড়ে যায়, চুলের আগা ফেটে যায়, রুক্ষ হয়ে পড়াসহ নানা সমস্যা দেখা দেয়।


এই সব সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়ার কিছু উপায়ও বাতলে দিলেন এই বিশেষজ্ঞ। তিনি জানান, বর্ষাকালে গোসল সেরে চুল শুকিয়ে ঝরঝরে করে ফেলতে হবে। বৃষ্টিতে ভিজে গেলেও চেষ্টা করতে হবে চুল শুকিয়ে নেওয়ার। ভেজা চুল বেঁধে রাখা যাবে না। চেষ্টা করতে হবে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন সঠিক নিয়মে চুল শ্যাম্পু করার। তার আগে চুলে অবশ্যই তেল লাগিয়ে সম্ভব হলে পুরো একটা রাত রেখে পরদিন ধুয়ে নিতে হবে। যদি সেটা সম্ভব না হয়, নিদেনপক্ষে এক ঘণ্টা বা আধা ঘণ্টা মাথার তালুতে ভালোভাবে তেল ম্যাসাজ করে নিতে হবে। মাথার চুলে খুশকি থাকলে তেলে লেবুর রস লাগিয়ে নিয়ে মাথার ত্বকে লাগাতে হবে। এতে খুশকি নরম হয়ে যাবে এবং মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে নিলে খুশকি উঠে আসবে। চুল ফাটা বা রুক্ষতা রোধে নিয়ম করে কিছু প্যাক লাগানো এবং খাদ্যাভ্যাসের প্রতিও জোর দেন তিনি। তিনি আরও বলেন, নিয়মিত প্রচুর পানি পান এবং ভিটামিন সি–জাতীয় খাবার চুলের এ ধরনের নানা সমস্যা রোধে কাজ করে থাকে।



বিন্দিয়া এক্সক্লুসিভ বিউটি পারলারের রূপ বিশেষজ্ঞ শারমিন কচি বললেন, বর্ষা মানেই নানা সমস্যায় চুল পড়ার সময়। তৈলাক্ত চুল হোক বা শুষ্ক, এই সময় চুলের সমস্যায় ভোগান্তি হয় সবারই। কখনো অতিরিক্ত আর্দ্রতায় ঘামে ভিজে চুল পড়ে, কখনোবা বৃষ্টিতে বারবার ভিজে চুল প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা হারায়। তাই এ সময় নিয়মিত শ্যাম্পু, কন্ডিশনার, তেল ম্যাসাজ ছাড়াও চুলের জন্য আরও বেশি যত্নের প্রয়োজন হয়। বর্ষায় চুলের যত্নের জন্য ঘরোয়া কিছু প্যাক ব্যবহার করা ভালো।


বর্ষায় চুলের যত্নে ঘরোয়া প্যাক

  • ২ টেবিল চামচ জলপাই তেল, ১ কাপ কাঁচা দুধ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই মাস্ক ১৫-২০ মিনিট চুলে লাগিয়ে রাখুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • ১টি পাকা অ্যাভোকাডো, ১ টেবিল চামচ জলপাই তেল ও সিকি কাপ কাঁচা দুধ মিশিয়ে আধা ঘণ্টা চুলে লাগিয়ে রাখুন। ঠান্ডা বা কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন।
  • ৪ থেকে ৫ টেবিল চামচ কাঠবাদামের দুধ, ১ থেকে ২ টেবিল চামচ নারকেল তেল, ১ টেবিল চামচ জলপাই তেল মিশিয়ে পুরো চুলে লাগিয়ে রাখুন। এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে নিন।
  • শুষ্ক চুল হলে ২টি ডিমের কুসুম এবং তৈলাক্ত চুল হলে ২টি ডিমের সাদা অংশ, ২ টেবিল চামচ জলপাই তেল, ১ কাপ কাঁচা দুধ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই মাস্ক ১৫-২০ মিনিট চুলে লাগিয়ে রাখুন। হালকা শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • ৩-৪টি স্ট্রবেরি, ১ টেবিল চামচ মধু, ১ টেবিল চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে নিন। ১৫-২০ মিনিট এই মাস্ক চুলে লাগিয়ে রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুতে হবে।
  • প্রাকৃতিক নিয়মে চুলে উজ্জ্বলতা বাড়াতে চাইলে মেথি পিষে নিয়ে সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরদিন ছেঁকে নিয়ে শুধু পানিটুকু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একটি হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। একটি কলা আর কয়েক চামচ অ্যাভোকাডো একসঙ্গে মিশিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। এতে বৃষ্টি দিনের এই স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়াতেও চুল থাকবে ঝরঝরে।

সূত্র: প্রথম আলো

Post a Comment

0 Comments