পাঁচ মাস আগে থেকে জরুরি জন্মবিরতিকরণ পিল খেতে শুরু করলেন কৃপা (ছদ্মনাম)। তবে খাওয়ার আগে গুগলে সার্চ করে বোঝার চেষ্টা করলেন কোনটা কিনতে হবে। কিন্তু এর জন্য বিশেষজ্ঞের কাছে গেলেন না তিনি। বললেন, তারা বিভিন্ন অস্বস্তিকর প্রশ্ন করেন। এগুলো নিয়ে কথা বলতে ভালো লাগে না। এভাবেই নিজের অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করলেন। একদিন সকালে জরুরি ভিত্তিতে জন্মবিরতিকরণ পিল খেতে হলো তাকে। তিনি গুগল থেকে পাঁট তারকা চিহ্নিত একটি পিল বেছে নিলেন।

দুই মাস হয়েছে বিভিন্ন সমস্যায় জড়িয়ে পড়েছেন ২২ বছর বয়সী কৃপা। পিরিয়ডের সময় অনেক বেশি রক্ত বের হচ্ছে। সম্ভাব্য কারণ বুঝতেও গুগলের আশ্রয় নিলেন। এক বন্ধু পেইনকিলার খেতে বললেন। কিন্তু কিছুই হলো না। অবশেষে গত মাসে তিনি বিশেষজ্ঞের কাছে গেলেন। গাইনকোলজিস্ট বললেন, কৃপা ভুল জন্মবিরতিকরণ পিল ব্যবহার করেছেন।

একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে ২১ বছর বয়সী কৃতি রাতির জীবেন। সম্প্রতি অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যা নিয়ে গেছেন গাইনকোলজিস্টের কাছে। বিশেষজ্ঞের কারণ বুঝতে বেশি সময় লাগেনি।

অনিরাপদ যৌনতার পর সকালে জন্মবিরতিকরণ পিল খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তোলেন রাথি। গত দুই বছর ধরে তিনি মাসে দুই-তিনটি পিল খেয়ে আসছেন। গত ছয় মাস ধরে তার পিরিয়ড অনিয়মিত হয়ে গেছে। তাই বাধ্য হয়ে বিশেষজ্ঞের কাছে আসা।

গ্রামে-গঞ্জে বা শহরের অনেক নারীই জানেন না বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া জন্মবিরতিকরণ পিল খাওয়া ঠিক নয়। ভুল সিদ্ধান্তে স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দিতে পারে, জানালেন গাইনকোলজিস্ট ড. চারুশিলা সাবনে। বলেন, জরুরি ভিত্তিতে জন্মবিকরতিকরণের কাজে নিয়মিত জরুরি জন্মবিরতিকরণ পিল খাওয়া ঠিক না। এতে পিরিয়ড চক্র নষ্ট হয়ে যায়। এতে গর্ভের উর্বরতা নষ্ট হয়, হরমোন ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে, ব্যথা ও অবসাদ দেখা দেয়। এ ছাড়া এলোমেলো পিল নিয়মিত খেলে সার্ভিক্যাল ইরোসিওনের মতো মারাত্মক স্বাস্থ্যগত সমস্যাও দেখা দেয়। জরুরি জন্মবিকরতিকরণ পিল বা রাতে যৌনতার পর সকালে উঠে খাওয়ার মতো পিল ফার্মেসিতে অহরহ মেলে। কিন্তু এগুলো বুঝে-শুনে-জেনে ব্যবহার করতে হবে।

বিশেষজ্ঞ ত্রিপাত চৌধুরি বলেন, নিয়মিতভাবে এসব পিল ব্যবহারে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। তা ছাড়া এসব পিলের অকার্যকারিতার হার অনেক বেশি। যদি কোনো নারী মাসে ৩-৪টি পিল গ্রহণ করেন, তবে তাকে নিয়মিত সাধারণ পিলেই চলে যাওয়া উচিত। হঠাৎ দুর্ঘটনা এড়াতে একটা খাওয়া যেতে পারে। কিন্তু মাঝে মাঝেই ব্যবহার করলে পিরিয়ড চক্র নষ্ট হয়ে যাবে। গর্ভধারণও কঠিন হয়ে পড়বে।

অনলাইনে আসলে যেকোনো মানুষ নিজেকে জন্মবিরতিকরণ পিল বা গর্ভধারণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ হিসাবে তুলে ধরতে পারেন। এখান থেকে পরামর্শ নিয়ে নিজে নিজে পিল বাছাই করার কারণে স্বাস্থ্যগত সমস্যা নিয়ে নারীদের আনাগোনা বেড়েই চলেছে। কম বয়সী মেয়েরা কখনোই বুঝতে পারেন না যে, তাদের কোন ধরনের পিল দরকার। কিভাবেই বা তা খেতে হয় তাও তারা জানেন না। এমনটাই বললেন গাইনকোলজিস্ট ড. অনিতা সোনি। বিশেষ করে ১৬ থেকে ২০ বছর বয়সী মেয়েরা সবচেয় বেশি সমস্যায় জর্জরিত হয়ে বিশেষজ্ঞের কাছে ছোটেন।

তবে প্রযুক্তি এগিয়ে যাচ্ছে। অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভাধারণ এড়াতে জন্মবিরতিকরণ ইঞ্জেকশনকে বেশ কার্যকর ব্যবস্থা বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আসলে বাজারের কোনো পদ্ধতিই শতভাগ কার্যকর নয়। যারা নিয়মতি যৌনতা আগ্রহী, তাদের জন্য সাধারণ জন্মবিরতিকরণ পিল বেশ কাজের। সবেচয়ে বড় কথা হলো, জন্মবিরতিকরণ পিল যাই খান না কেন, কখনোই নিজে পছন্দ করতে যাবেন না। বিশেষ করে জরুরি জন্মবিকরতিকরণ পিলের বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে।

মানুষ সহজেই ইন্টারনেট থেকে তথ্য বের করতে পারেন। কিন্তু সেই তথ্য আপনার জন্য খাটে কিনা তা ভাবতে হবে। এ কাজটি আপনাকে নিরাপদে করে দিতে পারেন একজন বিশেষজ্ঞ।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

মায়া আপা একটি ব্রাক নির্ভর সার্ভিস, এখানে আপনার সকল প্রশ্নের সঠিক জবাব প্রদান করা হয়। মায়া আপা থেকে নির্বাচিত কিছু প্রশ্ন নিচে দেওয়া হলঃ

আপু,এমন কোনো পিল আছে কি?যেটা একটি খেলে দীর্ঘদিন জন্ম নিওন্ত্রন পদ্ধতি করা যাবে। যদি থাকে সেটার ব্যাবহার কিভাবে করবো?আর কি পিল?

উত্তরঃ গ্রাহক, এমন পিল নাই। তবে ইমপ্লান্ট আছে।
ইমপ্ল্যান্ট পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন যেমন- Copper-T, Nova-T, Multiload।
আপনি এই বিষয়ে একজন গাইনি ডাক্তারের সাথে সাক্ষাৎ করলে উপকৃত হবেন।

oral pill খাওয়ার নিয়ম কি?
উত্তরঃ প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার  বয়স কত ? আপনার মাসিক কি নিয়মিত হয় ? গ্রাহক , দুই ধরনের ওরাল পিল আছে ,আপনি যে কোন একটি খেতে পারেন । জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি দুই ধরনের আছে— - Combined oral contraceptive pill (COCP) যাতে Oestrogen এবং Progesterone দুই ই থাকে। -Progesterone Only Pill (Pop)এ শুধু progesterone থাকে। এই  পিল সেবনের নিয়মাবলী নিম্নরূপ :- COCP  - আপনি যদি আপনার মাসিকের প্রথম দিন একটি বড়ি খান, তারপর প্রতিদিন একই সময়ে একটি করে বড়ি খাবেন ২১ দিন পর্যন্ত। ২১ দিন পর আপনি লক্ষ্য করবেন আপনার একটু ব্লিডিং হচ্ছে যাকে উইথড্রয়াল ব্লিডিং বলা হয়। কিছু প্যাকেটের সাথে ৭টি করে placebo pill বা আয়রন ট্যাবলেট থাকে যা আপনি এই সময় খেতে পারেন। এরপর আবার নতুন প্যাকেট শুরু করুন। আপনি যদি আপনার পিরিয়ডের ৫দিনের মধ্যে প্রথম পিলটি খান তাহলে আপনি সম্পূর্ণ ভাবে নিরাপদ থাকবেন। কিন্তু যদি আপনি প্রথম পিলটি পঞ্চম দিনের পরে খান অথবা আপনার চক্র ২৩ দিনের কম,তবে সেক্ষেত্রে ৭দিন পর্যন্ত কনডম ব্যাবহার করুন। POP - আপনি যদি আপনার পিরিয়ডের পঞ্চম দিনের আগে যে কোন সময় পিল শুরু করেন, সেক্ষেত্রে আপনি তাৎক্ষণিকভাবে বিপদমুক্ত থাকবেন যদি না আপনার short মাসিক চক্র হয় (২৩ দিনের চেয়ে কম), সেক্ষেত্রে আপনাকে POP সেবনের প্রথম দুইদিন কনডম ব্যাবহার করতে হবে। যদি আপনি প্রথম পিলটি পঞ্চম দিনের পরে খান, ৭দিন পর্যন্ত কনডম ব্যাবহার করুন। প্রতিদিন একই সময়ে পিল খান এবং নতুন প্যাকেট শুরু করুন চলতি প্যাকেট শেষ হওয়ার পর। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আমি আমার ইস্ত্রীর সাথে গত ২৫/৭/২০১৮ সেক্স করি তারপর তাকে একটি ইমকন ১ খাওয়াই।  তার ৬ দিন পর মাসিক হই ।  আবার তার সাথে আমি গত ০৮/০৮/২০১৮তারিখ তার সাথে সেক্স করি আবার ইমকন ১ খাওয়াই.. তারপর হাল্কা মাসিক হই.. তার পর তাকে পেগমেন্সি চেক করাই কিন্তু পেগমেন্ট না। তার মাসিক এর সমই ১৮ তারিখ.. কিন্তু মাসিক এর সমই পার হয়েছে ৩ দিন হল তবুও মাসিক হচ্ছে না... আমরা এখন বাচ্চা নিতে চাই না..এখন কি করব...????
উত্তরঃ আপনার স্ত্রীর বয়স কত ? ওনার মাসিক কি নিয়মিত হয় ?
গ্রাহক,ইমারজেন্সি পিলের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় আপনার মাসিকে এমন অনিয়ম  হতে পারে।এটি একটি হরমনাল জন্মনিয়ন্ত্রক পদ্ধতি। এই পিল প্রত্যেকটি অনিরাপদ সহবাসের পর বাচ্চা নিতে না চাইলে যত দ্রুত সম্ভব গ্রহন করা উচিত।
এই পিল সাধারনত সফল ভাবে গর্ভ নিরোধ করে , তবে মাসিকে অন্য ওষুধের মত এই পিলের কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে। তবে এই সব গুলো উপসর্গ সবার ক্ষেত্রে দেখা দেয়না ইমারজেন্সী পিলের প্রভাবে দেহে হরমোনের আধিক্য ঘটে।যার কারনে,মাসিক আগে বা পরে হতে পারে।এছাড়া অন্যান্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া,যেমন- সাধারণত মাথা ব্যথা, মাথা ঘোরা, বমি, বমি বমি ভাব, পেটে মোচড় দেওয়া। মাসিকে অনিয়ম, স্তন অস্বস্তি, মাসিকে অধিক রক্তক্ষরন, দুর্বল লাগা, কারো কারো ক্ষেত্রে মাসিক দুই সপ্তাহ ও পিছাতে পারে, কারো আগেও হয়ে যায়। কিন্তু ঠিক কতদিন আগে পরে হবে, তা সঠিক বলা যাবেনা।তবে এই সব গুলো উপসর্গ সবার ক্ষেত্রে দেখা দেয়না।
ইমার্জেন্সি পিল কোন রেগুলার জন্মনিয়ন্ত্রন পিল না।তাই, এই পিল ঘন ঘন খাওয়া উচিত নয়। এই পিলের প্রভাবে আপনার মাসিক চক্র অনিয়মিত হয়ে পরতে পারে। যার ফলে ভবিষ্যতে আপনার গর্ভধারনের ক্ষেত্রে সমস্যা সৃস্টি হতে পারে।

তাই,ভবিষ্যতে এই মূহূর্তে প্রেগনেন্ট হতে না চাইলে কন্ডম ব্যবহার করুন,অথবা অন্য যে কোন জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি অবলম্বন করুন।


maya apu apnak 2nd time likci, amr gf ar sathe goto mase dustomi kore or jonir sathe amar penis sporso koreci tohkon hoyto kicu liquate jonir opore lagte pare, bole rakha valo tarpor din or heavily period suru hoy,tacara o blece o akhono vergin ace. akhn cinter bisoy hocce ai mase or akhon period suru hoyni. or ki pregnant hovar kono chance ace, khub voy aci.

প্রিয় গ্রাহক,
আপনি যে বলছেন যে আপনার বান্ধবী virgin , মনে রাখবেন যে সেক্স ছাড়া অনেক কারণে hymen বা মাসিকের মুখে যে পর্দা থাকে, সেটা ছিড়ে যেতে পারে. তাই রক্তক্ষরণ হয় নাই বলে যে আপনার বান্ধবীর প্রেগ্নান্ট হওয়ার chance নেই সেটা ভুল ধারণা. খেলাধুলা করলে, পড়ে গেলে, লাফালাফি করলে hymen ছিড়ে যেতে পারে.

এখন আপনার বান্ধবীর মাসিক যেহেতু হয় নেই, আপনি তাকে একটা home pregnancy test করতে বলুন. যেকোনো ফার্মেসীতে এই কিট কিনতে পাওয়া যায়.

মেয়েদের মাসিকে অনেক কারণে অনিয়ম আসতে পারে, এমনকি প্রথম মেলামেশা করলেও হরমোন-এর change -এর কারণে এমন হতে পারে.

পরবর্তী সময় এমন "দুষ্টুমি" করার আগে ভেবে নিবেন. প্রেগ্নান্ট করে মেয়েটাকে উল্টাপাল্টা ওষুধ দিয়ে গর্ভপাত করানোর চেষ্টা করে মেয়ের জীবনে ঝুকি ফেলবেন না.


Post a Comment

Previous Post Next Post